সদরঘাটে লঞ্চে ঝুঁ‌কিপূর্ণ যাত্রী উঠা নামার সময় নিহত ১,আহত ২

125

কেরানীগঞ্জ উপজেলা করেস্পন্ডেটঃ রাজধানীর সদরঘা‌টের ঢাকা নদী বন্দ‌রে নৌকা ও ট্রলার যো‌গে ল‌ঞ্চে ঝুঁ‌কিপূর্ণ যাত্রী পারাপার করতে গিয়ে ২ যাত্রী আহত ও একজন নিহত হয়েছে। রোববার বিকেলে বন্দরের লালকুটি ঘাটে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী একাধিক ব্যাক্তি জানান,চাঁদপুর থেকে ছেড়ে আসা আব এ জমজম লঞ্চটি বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে লালকুঠি ঘাটে ভিড়ার সাথে সাথে একটি ইঞ্জিন চালিত ট্রলারে নদী পার হতে যাত্রী তুলতে থাকে লঞ্চ থেকে। এ সময় পেছন দিক থেকে এম ভি রফ রফ নামে একটি লঞ্চ ঘাটে নোঙর করার সময় দুই লঞ্চের চাপা পড়ে ওই দুর্ঘটনা ঘটে। এতে ঘটনাস্থলেই রাশেদ (১৯) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়। তাছাড়া আলী আজগর (৩৫) ও ট্রলারের চালক ইমরান (২৫) গুরুতর আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে ঘটনাস্থলেই আলী আজগরের একটি পা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। তাকে পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহত রাশেদ লক্ষীপুরের রায়পুর উপজেলার চরলক্ষী গ্রামের আব্দুল কাদেরের ছেলে এবং আলী আজগর শরিয়তপুর জেলার গোসাইরহাট উপজেলার হাজীপাড়া গ্রামের নাসির সরদারের ছেলে। ট্রলারের চালক ইমরানকে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে হয়েছে। ইমরান কেরানীগঞ্জের চর খেজুর বাগ এলাকার ইব্রাহিমের ছেলে। আহতদের পুরান ঢাকার স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। নিহত ও আহত ব্যক্তিরা কেরানীগঞ্জে যাওয়ার উদ্দেশ্যে ওই ট্রলারে উঠেছিলেন।

বিআইডব্লিউটিএর নৌ নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা বিভাগের কর্মকর্তা শ‌হিদ উল‌্যাহ বলেন, নৌকা দিয়ে ঝুঁকিপূর্ণভাবে লঞ্চে যাত্রী ওঠানামা বেআইনি। এসব ঘটনায় বিভিন্ন সময়ে হতাহতের ঘটনা ঘটছে। তাই সম্পূর্ণভাবে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এ জন্য সদরঘাট নৌ থানার ওসি বরাবরে চিঠিও দেয়া হয়েছে। আজকের ঘটনার জন্য ট্রলার চালক ও লঞ্চ চালক দায়ী বলে জানান তিনি।