গজারিয়ায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলায় নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ

71

গজারিয়া(মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি) মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় প্রাইম হাসপাতাল এন্ড ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক সেন্টার নামে একটি বেসরকারি হাসপাতালের কর্তৃপক্ষের অবহেলায় এক নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে।

গতকাল মঙ্গলবার বিকাল আনুমানিক সাড়ে ৪টার দিকে ভবেরচর হাসপাতাল রোডে গড়ে উঠা প্রাইম হাসপাতাল এন্ড ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক সেন্টারে এ ঘটনা ঘটে। অপমৃত্যুর অভিযোগে বিক্ষোভ করেন নবজাতকের স্বজনরা। পরে গজারিয়া থানা পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

জানা যায়, কুমিল্লার মেঘনা থানার লুটেরচর গ্রামের সৌদি আরব প্রবাসী মো. মুক্তার হোসেন এর স্ত্রী ফারজানা বেগম এর প্রসব বেদনা ওঠে। পরে মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে ভবেরচর প্রাইম হাসপাতাল এন্ড ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক সেন্টারে তাকে ভর্তি করা হয়। পরে বিকাল ৪টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে স্বাভাবিক সন্তান প্রসব করান। এর কিছুক্ষণ পরই নবজাতকের মৃত্যু হয়। প্রসূতির অবস্থা সংকটাপন্ন হলে কতৃপক্ষ ঢাকা একটি বেসরকারি হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

নবজাতক স্বজনের দাবী, সিজারিয়ান বিল নিয়ে নরমাল ডেলিভারি করার সময় চিকিৎসক টেনেহিঁচড়ে নবজাতককে বের করায় শিশু সন্তানটি মারা যায়। নবজাতকের মাথার অংশে ক্ষতচিহ্ন রয়েছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলায় শিশু সন্তানটি মারা যায় বলে জানান তারা।

এ বিষয়ে জানতে ওই হাসপাতালের চিকিৎসক আবু সাঈদ কে ফোন দেওয়া হলে তিনি রিসিভ করেননি।

গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মুবাশশিরা বিনতে আলম জানান, কোনো ভাবেই নবজাতকের মৃত্যু কাম্য নয়। এ ঘটনায় তদন্ত করে যারই অবহেলা পাওয়া যাবে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

গজারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মো. রইছ উদ্দিন জানান, অভিযোগ পেয়েছি। জিজ্ঞেসা বাদের জন্য প্রাইম হাসপাতাল এন্ড ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক সেন্টারে একজন কে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।