কেরানীগঞ্জে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের মুক্তি ও হেনাস্থকারীদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন

330

কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধিঃদৈনিক প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলামের মুক্তি ও হেনস্তাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে কেরাণীগঞ্জ উপজেলায় কর্মরত সাংবাদিক ও প্রথম আলো বন্ধু সভার আয়োজনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। আজ ১৯ মে (বুধবার) কেরাণীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়

প্রথম আলোর কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি ইকবাল হোসেন রতনের সঞ্চালনায় এবং কেরানীগঞ্জ প্রেসক্লাবে সভাপতি হাজী সালাউদ্দিন মিয়া সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন কেরানীগঞ্জ প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শফিক চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক আলতাফ হোসেন মিন্টু, সাবেক সভাপতি আঃগনি,সাবেক সভাপতি ও বর্তমান কার্যকরি সদস্য হাজি মোঃ দেলোয়ার হোসেন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক রায়হান খান, যুগান্তর প্রতিনিধি আবু জাফর,বাসস ও আলোকিত বাংলাদেশ কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি হাজি মোস্তফা কামাল,মোহনা টিভি ও মানবজমিন প্রতিনিধি আলমঙ্গীর হোসেন,ইত্তেফাক কেরানীগঞ্জ সংবাদদাতা এইচ এম আমিন, আজকালের খবর কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি সাজ্জাদ হোসেন, ভোরের ডাক কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি ইউসুফ আলী,বন্ধুসভার জাতীয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ড. মুমিত আল রশিদ।

দৈনিক সংবাদ কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি শহিদুল ইসলাম বিপ্লব, দৈনিক সমকাল রিপোর্টার মোক্তার হোসেন, দৈনিক খবরপত্র কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি শেখ শামীম, দৈনিক বাংলাদেশের খবর কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি এরশাদ হোসেন, আজকের পত্রিকা কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি নাজিম উদ্দীন ইমন, ডিবিসি রিপোর্টার লিটন মাহমুদ, আনন্দ টিভি কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি এম.আশিক নুর, জিটিভি কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি সোহরাওয়ার্দী শ্যামল দেশরূপান্তর কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি রাজু আহমেদ, আমার সংবাদ কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি শামসুল ইসলাম সনেট, দৈনিক বাংলাদেশের আলো কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি মাসুদ রানা, দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি মোঃ শাহিন, প্রথম আলো বন্ধু সভার সভাপতি সাইমন চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক রেবেকা সুলতানা উর্মি, সাবেক সভাপতি রিয়াজ আহমেদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম রাজু,শাওন আহমেদ,প্রমুখ।

এসময় বক্তারা, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে দৈনিক প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলামকে নির্যাতন ও হেনস্তায় জড়িতদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থার দাবি জানিয়ে বলেন, অবিলম্বে রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। তা না হলে আমরা কঠোর আন্দোলনে যাবো।