অবশেষে বিষ খেয়েই মারা গেলো কেরানীগঞ্জের কবির।

2299

কেরানীগঞ্জ করেস্পন্ডেটঃ লোকে বলে ‘যে যা জপে তাই ঘটে’ এমনই এক ঘটনা ঘটেছে ঢাকার কেরানীগঞ্জ মডেল থানার রোহিতপুর ইউনিয়নের মুগারচর গ্রামে। চার (মেয়ে) শন্তানের জনক নেশায় আসক্ত কবির হোসেন(৪০) সব সময় বললতো বিষ খেয়েই মরবে সে। স্ত্রী ও মায়ের কারণে আগে ৪/৫ বার বিষ এনেও খেতে পারেনি, কিন্তু শেষ রক্ষা হলোনা। গত ১৯ রবিবার (ডিসেম্বর) সকাল ৬ টার দিকে অতিরিক্ত ঘুমের টেবলেট ও বিষ খেয়ে বিষের জ্বলায় ছটফট করছিলো স্থানীয় জয়নাল মিয়ার ছেলে কবির।

পরিবারের লোকজন প্রথমে তাকে কেরানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ (মিটফোর্ড) হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্মরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

কবিরের মা হোসনে আরা বলেন, ছেলে নেশাগ্রস্ত ছিলো, নেশার টাকার জন্য মাঝে মাঝেই বাসায় বকাবকিও করতো। আগেও চার/পাঁচ বার বিষের বোতল ফেলে দিয়ে ছেলে কে বাচিয়েছি। কিন্তু শেষ রক্ষা হলোনা। ছেলের লাশ পরে আছে হাসপাতাল মর্গে। অন্যদিকে স্বামীকে হারিয়ে পাগল প্রায় কবিরের স্ত্রী। বিলাপ করে বলছিলেন, কি হবে আমার চার মেয়ের, কি হবে তাদের ভবিষ্যৎ? কে রাখবে তাদের খেয়াল। আমার আর কিছুই রইলোনা।